জলমগ্ন বাগেরহাটে ৫০ গ্রাম; কৃষির ব্যাপক ক্ষতি, হুমকিতে বেড়িবাঁধ

ঘূর্ণিঝড় মহাসেনের দু’দিন আগে থেকে শুরু হওয়া বৃষ্টি ও পূর্ণিমার প্রভাবে পানির চাপে উপকূলীয় বাগেরহাটের পাঁচটি উপজেলার কমপক্ষে ৫০টি গ্রাম জলমগ্ন হয়ে পড়েছে। ক্ষেত-খামারের ব্যাপক ক্ষতি, হুমকির মুখে পড়েছে বেড়িবাঁধ।

নষ্ট হয়ে গেছে এসব এলাকার উঠতি বোরো ধানের অধিকাংশই। একইসঙ্গে মারত্মক ক্ষতি হয়েছে আউশ আবাদ, গ্রীষ্মকালীন সবজির। অধিকাংশ গাছ মরে পঁচে গেছে। এতে প্রায় পাঁচ কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এছাড়া কচুয়ায় গজালিয়া ও মঘিয়া ইউনিয়নে কমপক্ষে দুই কোটি টাকার তরমুজ-বাংগি ক্ষেত নষ্ট হয়ে গেছে। অনেক স্থানে চিংড়ি ঘের, পুকুর, মাছের খামার ভেসে গেছে।ফলে চরম বিপাকে পড়েছেন এসব এলাকার ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকেরা।

রামপালের বাইনতলা গ্রামের কৃষক ইমরান শেখ বলেন, ‘তিন বিঘা জমির সব ধান নষ্ট হয়ে গেছে। কুমড়া, মরিচ,করোলা, শসা গাছ পঁচে গেছে। এবার না খেয়ে মরতে হবে। এনজিওর ঋণ কিভাবে শোধ করবো কিছুই বুঝতে পারছি না’।

এদিকে, পানির প্রবল চাপে জেলার রাধাবল্লভ, ডেমা, চাঁপাতলা, যাত্রাপুর, মোড়েলগঞ্জ, শরণখোলা, রামপাল, চিতলমারী, কচুয়া, মংলা ও সদর উপজেলার অন্তত: ১০ স্থানে বেড়িবাঁধ হুমকির মুখে পড়েছে।

কোথাও কোথাও বেড়িবাঁধের ওপর দিয়ে পানি ঢুকছে। বাঁধ ভেঙে যাওয়ার আশঙ্কায় এসব এলাকার মানুষ উদ্বিগ্ন হয়ে উঠেছেন।

এ পরিস্থিতিতে রোববার দিনব্যাপী সদর উপজেলার বিভিন্ন এলাকা পরিদর্শন করেছেন  স্থানীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্জ অ্যাডভোকেট মীর শওকাত আলী বাদশা, জেলা প্রশাসক মু: শুকুর আলী, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এ.এফ.এম এহতেশামূল হক, ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যান শেখ বশিরুল ইসলাম, শেখ আক্তারুজ্জামান বাচ্চু, এমএ মতিন ।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক হীরেন্দ্রনাথ হাওলাদার জানান, ৯/১০ দিনের অতিবর্ষণে বীজতলা, তিল, উঠতি আউশ-বোরো ও গ্রীষ্মকালীন সবজি ক্ষেত জলমগ্ন হয়ে বেশ ক্ষতি হয়েছে।

তিনি আরও জানান বেশি ক্ষতিগ্রস্থ রাখালগাছি, খানপুর, বাইনতলা ইউনিয়নের অধিকাংশ ধানের ক্ষেত এরই মধ্য নষ্ট হয়ে গেছে। ব্যাপক ক্ষতি স্বিকার হয়েছে জেলার সাত উপজেলার গ্রীষ্মকালীন ফসলের।

জেলা প্রশাসক মু. শুকুর আলী জানান, অকাল ভারী বর্ষণে জেলাব্যাপী গ্রীষ্মকালীন সবজির ক্ষতি এবং পাঁচ/ছয়টি ইউনিয়নে উঠতি বোরো ধানের ক্ষেত জলমগ্ন হয়ে নষ্ট হয়ে গেছে। দুই শতাধিক কাঁচা ঘরবাড়ির ক্ষতি ও বেশ কিছু গাছপালা উপড়ে পড়েছে।

ক্ষয়ক্ষতি নিরূপণে সংশ্লিষ্ট উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে তিনি জানান।

২৬-০৫-২০১৩ :: নিউজ করেসপন্ডেন্ট,
বাগেরহাট ইনফো ডটকম।।

ইনফো ডেস্কWriter: ইনফো ডেস্ক (1855 Posts)