ফকিরহাট ইউপি উপনির্বাচন: উৎসবের আমেজে চলছে ভোট গ্রহণ

ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে সকাল থেকে শান্তিপূর্ণ ভাবে চলেছ ৪নং ফকিরহাট সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদের উপনির্বাচনের ভোটগ্রহণ।

সকাল ৮টা থেকে ভোটারদের স্বতঃস্ফূর্ত উপস্থিতিতে ইউনিয়নের ৯টি কেন্দ্রের চলছে ভোট গ্রহণ। চলবে বিকাল ৪টা প্রয়ন্ত।

ফকিরহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি তদন্ত) দিলিপ কুমার সরকার জানান, নির্বাচনকে ঘিরে আইন-শৃংখলা রক্ষাথে ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়েছেন তারা।  প্রতিটি কেন্দ্রে ১০ জন পুলিশ, ১৭ জন আনসার সদস্য ছাড়াও নির্বাচনে স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে কাজ করছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।

সকাল থেকে এখন পর্যন্ত নির্বাচনী এলাকার কোথাও কোন অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। তাছাড়া নির্বাচনে অংশকারী কোন প্রার্থীর পক্ষ থেকেও এখন পর্যন্ত কোন অভিযোগ পাওয়া যায়নি বলে জানান তিনি।

ফকিরহাট উপজেলা নির্বাচন অফিসার ও উপনির্বাচনে রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. আ. সাত্তার দুপর ২টার সময় বাগেরহাট ইনফোকে জানান, উৎসব মুখর ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট গ্রহণ চলছে। তাদের প্রাপ্ত সর্বশেষ তথ্য অনুয়াই এখন পর্যন্ত শতকরা ৫০-৫৫ ভাগ গ্রহন শেষ হয়েছে।

নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন মোট ৬ জন প্রার্থী। এরা হলেন, প্রয়াত চেয়ারম্যান খান জাহিদ হাসানের স্ত্রী শিরিনা আক্তার কিসলু (আনারস), যুবলীগরে সভাপতি হারুন অর রশিদ (তালা), জামায়াত নেতা অধ্যাপক মাও. মোফাজ্জেল হায়দার (দোয়াত-কলম), বিএনপি নেতা শেখ মুশফিকুজ্জামান রিপন (মটরসাইকেল), বিএনপি নেতা মো. বাবুল শেখ (টেবিল) ও খান হাসানুর আলম (কাপ-প্রিচ)।

নির্বাচনে মোট ভোটার ১৭ হাজার ২১০জন, এরমধ্যে পুরুষ ভোটার ৮ হাজার ৬৯১ এবং মহিলা ভোটার ৮ হাজার ৫১৯জন। ইউনিয়নে ভোট কেন্দ্র ৯টি। মোট ভোট কক্ষের সংখ্যা ৪১টি, অস্থায়ী ভোট কক্ষের সংখ্যা ১টি।

উল্লেখ্য, চলতি বছরের ১৮ মে ফকিরহাট সদর ইউপি চেয়ারম্যান খান জাহিদ হাসান রূপসা এলাকায় সন্ত্রাসীদের গুলিতে খুন হয়। যে কারণে উক্ত ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদটি শূন্য হয়।

আগষ্ট ২০১৩ :: ইনজামামুল হক, নিউজ করেসপন্ডেন্ট,
বাগেরহাট ইনফো ডটকম

ইনফো ডেস্কWriter: ইনফো ডেস্ক (1855 Posts)