সুন্দরবনে ‘গোলাগুলি’ পর ২ দস্যু গ্রেপ্তার

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাগেরহাট ইনফো ডটকম

সুন্দরবনে গোলাগুলির পর বনদস্যু ‘সুমন বাহিনী’র দুই সদস্যকে গ্রেপ্তারের কথা জানিয়েছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব-৮)।

র‌্যাব জানায়, বৃহস্পতিবার (১৭ আগস্ট) সকাল ৮টা থেকে সুন্দরবনের চাঁদপাই রেঞ্জের আন্ধারমানিক খালে দস্যুদের সঙ্গে থেমে থেকে প্রায় আধা ঘন্টাব্যাপি গোলাগুলি হয়।

পরে ওই এলাকায় তল্লাশি চালিয়ে অস্ত্র ও গুলিসহ দুই দস্যুকে গ্রেপ্তার করা হয়। এরা হলো- সাতক্ষিরার শ্যামনগর উপজেলার চাঁদনীমুখী গ্রামের মান্নান গাজীর ছেলে মো. মিন্টু গাজী (৩৪) ও বাগেরহাটের মংলা উপজেলার সোনাইনতলা গ্রামের প্রয়াত তোফা শেখের ছেলে  মো. আবুল হোসেন ওরফে আবু ঢালী (৩২)।

এদের মধ্যে মিন্টু গাজী দস্যু ‘সুমন বাহিনী’র সেকেন্ড ইন কমান্ড বলে জানায় র‌্যাব।

র‌্যাব-৮ এর অধিনায়ক লে. কর্নেল আনোয়ার উজ জামান বলেন, দস্যুদের সাথে প্রায় আধা ঘন্টা ধরে চলা গুলি বিনিময়ের পর ওই এলাকায় তল্লাশী করে ১টি বিদেশি দোনালা বন্দুক, ১টি পাইপগান, ১টি শ্যুটারগান, বিভিন্ন ধরনের ২৪টি গুলি ও কয়েকটি রামদা উদ্ধার করা হয়েছে।

বাগেরহাট ইনফো ডটকমকে তিনি বলেন, চলতি ইলিশ মৌসুমে সুন্দরবনের তাম্বুল, বুনিয়া, বগারখাল, কলামূলা, হরিণটানা, ট্যাংরাখালী, ছাপরাখালী, বন্দে আলী খাল, পশুর, ভদ্রা এবং শিবসা নদী সংলগ্ন খালসহ  চাঁদপাই রেঞ্জের বিভিন্ন এলাকায় দস্যুতা ও নিরীহ জেলেদের অপহরণ করে মুক্তিপন দাবি করে ‘সুমন’ নামের নতুন একটি বাহিনী।

মোবাইলের মাধ্যমে জেলে-মহাজনদের কাছে মোটা অংকের টাকা দাবি করার পাশাপাশি দস্যুরা বিভিন্নভাবে ভয়ভীতি ও হুমকি দিচ্ছিল। এর প্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার সকাল সোয়া ৮টার দিকে আন্ধারমানিক খাল এলাকায় অভিযানে যায়।

লেফটেন্যান্ট কর্নেল আনোয়ার বলেন, সেখানে পৌঁছলে একদল বনদস্যু র‌্যাব সদস্যদের লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। এসময় র‌্যাবও পাল্টা গুলি চালায়। থেমে থেমে প্রায় ৪৫ মিনিট গোলাগুলির পর এক পর্যায়ে বনদস্যুরা বনের গহীনে পালানোর চেষ্টা করে।

এসময় র‌্যাব সদস্যরা তাদের ধাওয়া দিয়ে দুজনকে ধরে ফেলে। তারা ‘সুমন বাহিনী’র সদস্য বলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ব্যাবের কাছে স্বীকার করছে।

গ্রেপ্তার দুই দস্যুকে মামলা দায়েরের পর খুলনার দাকোপ থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

এরআগে গত মঙ্গলবার ভোরে সুন্দরবনের হরিণটানা খাল সংলগ্ন এলাকায় বন্দুকযুদ্ধের পর মুক্তিপনের দাবিতে অপহৃদ চার ছেলেকে উদ্ধার করার কথা জানায় কোস্টগার্ড। সে সময়ে ৯ রাউন্ড তাজাগুলি, একটি ইঞ্জিন চালিত ট্রলার ও ১৩ টি মোবাইল সেট উদ্ধার করা হলেও কাউকে আটক করতে পারেনি তারা।

এজি//এসআই/বিআই/১৭ আগস্ট, ২০১৭

বাগেরহাট ইনফো নিউজWriter: বাগেরহাট ইনফো নিউজ (1299 Posts)