বাগেরহাট বাণিজ্য মেলায় ‘র‌্যাফেল ড্র’ স্থগিত

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাগেরহাট ইনফো ডটকম

বাগেরহাট শিল্প ও বাণিজ্য মেলায় চলা ‘র‍্যাফেল ড্র’-এর উপর ২৪ ঘন্টার জন্য স্থগিতাদেশ দিয়েছেন আদালত।

বুধবার (৭ ফেব্রুয়ারি) মেলায় ‘দৈনিক স্বপ্নছোঁয়া র‌্যাফেল ড্র’র নামে বেআইনী ও অবৈধ লটারি কার্যক্রমের বিরুদ্ধে স্থায়ী নিষেধাজ্ঞা চেয়ে করা আবেদনের প্রেক্ষিতে আদালত এ আদেশ দেন। একই সাথে বাণিজ্য মেলায় চলা ওই লটারি কার্যক্রম কেন স্থায়ীভাবে বন্ধ করা হবে না, তা জানাতে আয়োজকসহ মামলার ৮ বিবাদীকে ওই সময়ের মধ্যে কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়েছেন আদালত।

বাগেরহাট সদর আদালতের জেষ্ঠ্য সহকারি জজ আবু হাসান খায়রুল্লাহ বিকেলে এই আদেশ দেন। মামলার পরবর্তী শুনানি হবে বৃহস্পতিবার (৮ ফেব্রুয়ারি)।

মামলার ৮ বিবাদী হলেন যথাক্রমে বাগেরহাট চেম্বার অব কমার্স ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি, শেখ হেলাল উদ্দিন স্টেডিয়াম নিয়ন্ত্রণকারী কর্তৃৃপক্ষ জেলা ক্রিয়া সংস্থার সাধারন সম্পাদক, দৈনিক স্বপ্নছোঁয়া র‌্যাফেল ড্র-র স্বত্বাধিকারী আঃ রাজ্জাক, পুলিশ সুপার, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের গোপনীয় শাখার সহকারী কমিশনার, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ও জেলা প্রশাসককে।

লটারি স্থগিত থাকলেও মেলার অন্যান্য কার্যক্রম স্বাভাবিক নিয়মে চলছে। প্রশাসন আগামী ১৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত শেখ হেলার উদ্দিন স্টেডিয়ামে শিল্প ও বাণিজ্য মেলার অনুমতি দেয় বাগেরহাট চেম্বার অব কমার্স ইন্ডাস্ট্রিকে।

জেলার রামপাল উপজেলার গিলাতলা গ্রামের জনৈক শেখ বেল্লাল হোসেনসহ ১০জন প্রান্তিক নারী-পুরুষ মেয়ায় অবৈধ লটারি বন্ধ চয়ে আদালতে মামলাটি দায়ের করেন। বাদী পক্ষে মামলাটি পরিচালনা করছেন জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট এ কে আজাদ ফিরোজ টিপু।

সাংবাদিকদের তিনি বলেন, চলতি বছরের ১৬ জানুয়ারি বাগেরহাট শিল্প ও বণিক সমিতিকে (চেম্বার অব কর্মাস এন্ড ইন্ডাস্ট্রি) সকল প্রকাশ জুয়া অনুষ্ঠান না করাসহ ১৫টি শর্তে এক মাসব্যাপী শিল্প ও বাণিজ্য মেলা আয়োজনের অনুমতি দেয় জেলা প্রশাসন। কিন্তু সেই শর্ত লঙ্ঘন করে এবং মন্ত্রণালয়ের নির্দেশ না মেনে মেলায় প্রতিদিন রাতে লটারির (র‌্যাফেল ড্র) আয়োজন করেছে। সরকারি আদেশ উপেক্ষা করে দৈনিক স্বপ্নছোঁয়া নামের একটি প্রতিষ্ঠান আয়োজকদের সহযোগীতায় মেলায় অবৈধ ওই র‌্যাফেল ড্র পরিচালনা করছে।

‘আকর্ষণীয় বিভিন্ন পুরস্কার ঘোষণা করে তারা ২০ টাকা মূল্যে এক একটি টিকিট বিক্রি করে প্রতিদিন সন্ধ্যায় র‌্যাফেল ড্র’র আয়োজন করছিল। মোটরসাইকেল, সোনার চেইনসহ বিভিন্ন পুরস্কারের প্রলোভনে দিয়ে মাইকে পুরো জেলা জুড়ে প্রচার করে টিকিট বিক্রি করছিল তারা। রাতে স্থানীয় ক্যাবল ভিশনের মাধ্যমে ‘র‌্যাফের ড্র’-র ফলাফল সরাসরি সম্প্রচার করা হত।’

বাদি পক্ষের আইনজীবী বলেন, গত ১ ফেব্রুয়ারি থেকে দেশে শিক্ষা বোর্ডগুলো অধিনে এসএসসি পরীক্ষা শুরু হয়েছে। এর মাঝেও প্রতিদিন উচ্চস্বরে মাইক বাজিয়ে ওই লটারির টিকির বিক্রি করা হচ্ছিল। লটারি জেতার লোভে এলাকার মানুষ বিভিন্ন অসদুপায় অবলম্বন করে টিকিটের টাকা জোগাড় করছিল। যার জন্য চুরি, ছিনতাইসহ বিভিন্ন ধরণের বেড়ে গেছে।

‘প্রশাসনের উদাসীনতার সুযোগে দৈনিক স্বপ্নছোঁয়া র‌্যাফেল ড্র প্রতিদিন চাকচিক্য প্রচারণা ও প্রতারণার মাধ্যমে অবৈধ এবং বেআইনী ভাবে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। আদালতের বিচারক শুনানী শেষে মেলায় অনুষ্ঠেয় র‌্যাফেল ড্র-র উপর ২৪ ঘন্টার স্থগিতাদেশ দিয়েছেন।’

একই সাথে বাণিজ্য মেলায় চলা লটারির কার্যক্রম কেন বন্ধ করা হবে না, তা জানাতে বাগেরহাটের জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট, জেলা ক্রিড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক, শিল্প ও বণিক সমিতির সভাপতি, লটারী র‌্যাফেল ড্র দৈনিক স্বপ্ন ছোঁয়ার সত্ত্বাধিকারিসহ আটজনকে ২৪ ঘন্টার মধ্যে কারণ দর্শাতে নোটিশ দিয়েছে বলে জানান ওই আইনজীবী।

এ বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে মেলার আয়োজক বাগেরহাট চেম্বারের সভাপতি শেখ লিয়াকত হোসেন লিটন বলেন, আদালতের আদেশের কোন কাগজপত্র এখনো হাতে এসে পৌছায়নি। হাতে পৌছলে আদালতে নির্দেশনা অনুযায়ি আইনজীবীর মাধ্যমে কারণ দর্শানোর নোটিশের জবাব দেব।

এইচ//এসআই/বিআই/০৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮

বাগেরহাট ইনফো নিউজWriter: বাগেরহাট ইনফো নিউজ (1498 Posts)