ছেলের সঙ্গে চলে গেলেন মাও

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাগেরহাট ইনফো ডটকম

মায়ের হাত ধরে স্কুলে যাচ্ছিল দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্র মো. ওমর (৭)। কিন্তু তার আর স্কুলে যাওয়া হলো না। পথেই তার কোমল প্রাণ কেড়ে নিয়েছে মাইক্রোবাস।

ছেলের সঙ্গে প্রাণ গেছে মা সুমাইয়া আক্তার শিল্পীরও (৩৫)।

রোববার (১৮ মার্চ) সকালে মোরেলগঞ্জে উপজেলার বলইবুনিয়া ইউনিয়নের কালিকাবাড়ি দোনা গ্রামের সাইনবোর্ড-বগী মহাসড়কে এ ঘটনা ঘটে। এ সময়ে এক ভ্যান চালক আহত হয়েছেন।

নিহত সুমাইয়া আক্তার শিল্পী দোনা গ্রামের মোশারেফ হোসেনের স্ত্রী। তাদের ছেলে ওমর স্থানীয় দোনা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্র ছিল।

প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে মোরেলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রাশেদুল আলম বলেন, রোববার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে শিল্পী তার ছেলেকে স্কুলে দিতে যাচ্ছিলেন।

‘ওই মহাসড়ক দিয়ে পাঁয়ে হেটে যাবার সময় বাগেরহাট থেকে মোরেলগঞ্জমুখী দ্রুতগামী একটি মাইক্রোবাস বিপরীত দিক থেকে আসা ব্যাটারি চালিত একটি ভ্যানকে ধাক্কা দিয়ে তাদের চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই মা-ছেলের মৃত্যু হয়।’

খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে নিহতদের মরদেহ উদ্ধার করে। আহত ভ্যান চালক রুহুল আমিনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

পরিবারের বরাত দিয়ে ওসি জানান, নিহত শিল্পী ৫ মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন।

দুর্ঘটনার পর চালক মাইক্রোবাসটি ফেলে পালিয়ে যাওয়ায় তাকে গ্রেপ্তার করা সম্ভব হয়নি। তবে গাড়ীটি জব্দ করা হয়েছে বলে জানান ওই পুলিশ কর্মতর্তা।

মোরেলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মেডিকেল অফিসার ডা. মো. এনামুল কবির বলেন, মা শিল্পী ও তার ছেলে মো. ওমরকে মৃত অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে আসে স্থানীয়রা।

এজি//এসআই/বিআই/১৮ মার্চ, ২০১৮

বাগেরহাট ইনফো নিউজWriter: বাগেরহাট ইনফো নিউজ (1452 Posts)