প্রচ্ছদ / খবর / ছবি তুলেই পাশে দাড়ানোর চেষ্টা

ছবি তুলেই পাশে দাড়ানোর চেষ্টা

শহর প্রতিবেদক, বাগেরহাট ইনফো ডটকম

করোনার কঠিন সময়ে সংগ্রামটা বেড়েছে সবার। স্বল্প আয়ের মানুষের উপার্জন কমেছে, আয়ের পথও বন্ধ অনেকের।

সেই সময়ে পাশে দাড়ানোর এক নতুন উদাহারণ তৈরি করেছেন বাগেরহাট সদরের তরুণ চিত্রগ্রাহক সোহাগ আহমেদ। ক্যামেরা হাতে নিজের কাজটাকেই পুজি করে অসহায়দের জন্য অর্থের সংস্থান করেছেন তিনি।

ফ্রিল্যান্সার ফটোগ্রাফার হিসেবে কাজ করলেও করোনার কারণে অনুষ্ঠান আয়োজন কমে যাওয়ায় ভাটা পড়ে তার কাজে। পাশে দাড়ানোর ইচ্ছা থাকলেও বন্ধ হয়ে যায় তার নিজের উপার্জনই। তবে থেমে থাকেনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নিজের ভিন্ন ধর্মী চিন্তা ও আগ্রহ তুলে ধরেন সোহাগ।

করোনা মহামারীর শুরুর দিকে ব্যাক্তিগত ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে ঘোষণা দেন এই সময়ে ছবি তুলে যে টাকা আয় হবে, তা থেকে দুস্থ ও অসহায়দের পাশে দাড়ানোর।

বেরিয়ে পড়েন ক্যামেরা হাতে। ইত্যাদি মুভির নামের তার কর্মস্থলের সহায়তায় স্বাস্থ্য বিধি মেনে ঝুঁকি নিয়েই কাজে লেগে পড়েন৷ তথ্যচিত্র নির্মাণসহ প্রয়োজনে মানুষের বাড়িবাড়ি গিয়ে ছবি তুলে অর্থ যোগার করতে থাকেন৷ সেই অর্থ দিয়ে এরই মধ্যে একাধিক পরিবারকে ঔষধ সামগ্রী এবং করোনায় কাজ করা সামাজিক সংগঠনের মাধ্যমে সহায়তা প্রদাণে করেন তিনি।

বুধবার (২৯ জুলাই) সেই ধারাবাহিকতায় বাগেরহাটের জেলা প্রশাসনের কোভিড ফ্যান্ডে ৫ হাজার টাকা প্রদান করেছেন সোহাগ আহমেদ। আলোকচিত্রি হিসাবে নজির স্থাপন করা সোহাগ মনে করেন, সরাকারের পাশাপাশি নিজ নিজ অবস্থান থেকে সবাই যদি তাদের ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র সহায়তার হাত বাড়িয়ে দেয়, তবে মহামারিতেও সমাজের অসহায় পরিবারগুলোর মাঝে হাসি ফোঁটানো সম্ভব।

২০০৮ সাল থেকে বাগেরহাটে ফ্রিল্যান্স ফটোগ্রাফার হিসাবে কাজ করা সোহাগ আহমেদ বর্তমানে সরকারি পি.সি. কলেজ থেকে রাষ্ট্রবিজ্ঞানে মাস্টার্স পড়ছেন৷ ছবির মাধ্যমে নিজ জেলাকে তুলে ধরা তার অন্যতম আগ্রহ।

এসআই/আইএইচ/বিআই/২৯ জুলাই, ২০২০

About বাগেরহাট ইনফো নিউজ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

 

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.